আপডেট : ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২৩:১০

কেন্দ্র পাহারার জন্য গণকমিটি গঠন করতে বললেন আ স ম রব

গাজীপুর প্রতিনিধি
কেন্দ্র পাহারার জন্য গণকমিটি গঠন করতে বললেন আ স ম রব

জেএসডি সভাপতি ও ঐক্যফ্রন্টের নেতা আ স ম আবদুর রব ভোটের দিন কেন্দ্র পাহারার জন্য গণকমিটি গঠনের পরামর্শ দিয়েছেন। তিনি বলেন, ভোট কারচুপি রোধে মসজিদের ইমাম, মাদ্রাসার সুপারিনটেনডেন্ট, শিক্ষকসহ বিভিন্ন পেশার ১০১ জনের গণকমিটি গঠন করা হবে। এ কমিটির সবাই ভোটের দিন ভোট সারার আগে কেন্দ্র থেকে কেন্দ্র ঘেরারও করে রাখবেন, রেজাল্ট শিট না নিয়ে কেউ কেন্দ্র ছেড়ে যাবেন না এবং প্রিসাইডিং পোলিং অফিসাদের যেতে দেবেন না।

শনিবার দুপরে টঙ্গীর কলেজগেট এলাকায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মনোনীত প্রার্থী সালাউদ্দিন সরকারের বাসভবনসংলগ্ন মাঠে ২৩ দলীয় জোট ও ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী (ধানের শীষের) সমর্থনে নির্বাচনী জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন। জেএসডি সভাপতি বলেন, ভোটের আগের রাত ৪টার আগে ভোটকেন্দ্রে পাহারা দিতে হবে। রাত ১২টার পর উঠে যেতে হবে। ৮টা থেকে ভোট শুরু হয়। ভোটকেন্দ্রে গিয়ে বাক্সগুলো পরীক্ষা করে দেখতে হবে, কোনো বাক্সে ব্যালট আছে কি-না। নির্বাচনে কারচুপির চক্রান্ত হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, আমাদের কাছে তথ্য আছে, তেজগাঁওয়ে বিজি প্রেসে ডাবল ব্যালট পেপার ছাপানো হচ্ছে। প্রেসের কর্মচারী ভাইদের বলব, আপনারা এ অন্যায় কাজ থেকে বিরত থাকবেন। এ জন্য আপনাদের চাকরি চলে গেলে ঐক্যফ্রন্ট ক্ষমতায় গেলে আপনাদের চাকরি ফিরিয়ে দেব।

গাজীপুর মহানগর বিএনপির সভাপতি হাসান উদ্দিন সরকারের সভাপতিত্বে জনসভায় আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান, ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না প্রমুখ।

মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, আমরা একটি যুদ্ধে নেমেছি। যে যুদ্ধে আমাদের কাছে অস্ত্র নেই ওদের কাছে অস্ত্র আছে। তার পরেও ওরা আমাদের কাছে পরাজিত হবে, কারণ আমাদেব কাছে ব্যালট আছে। আমাদের লড়াই করতে হবে ওই লড়াইটি কী, তা আমাদের বুঝতে হবে। ওরা আমাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে, ওরা মির্জা ফখরুলের গাড়িতে হামলা করে, মইন খানের গাড়িতে হামলা করে, বিএনপির অফিসে ঢুকে পুলিশ গুলি করে, প্রার্থী আহত হন, সিরাজগঞ্জে টুকু ভাইয়ের স্ত্রী আহত হয়েছেন। তিনি বলেন, প্রার্থীসহ সারা দেশে গণগ্রেফতার করছে এবং সব শেষে তারা এখানে সভায় জায়গায় প্রার্থী লাগিয়ে দিয়েছে। তারপরও তারা এই সভাকে থামাতে পারেনি। আমরা এখানে যারা বসে আছি এ সভাস্থল ভরে রাস্তা পর্যন্ত গিয়ে মানুষ আমাদের কথা শুনছে। তারা দেখুক মানুষ আমাদের সঙ্গে আছে, তাদের সঙ্গে নেই।

আপনার মন্তব্য